CAA নিয়ে কর্ণাটকে জারি ১৪৪ ধারা। চলবে ৩ দিন পর্যন্ত

0
485
144 imposed in Karnataka

CAA নিয়ে কর্ণাটকে জারি ১৪৪ ধারা। চলবে ৩ দিন পর্যন্ত।

CAA নিয়ে আন্দোলন হচ্ছে না এমন কম রাজ্যই রয়েছে। তবে এবার সেই আন্দোলনের জেরে কর্ণাটকে জারি হতে চলেছে ১৪৪ ধারা। ১৪৪ ধারা ৩ দিন পর্যন্ত বহাল থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।

সোমবার থেকেই দেশের বিভিন্ন রাজ্যে প্রায় সর্ব স্তরের মানুষ কে প্রতিবাদে রাস্তায় নামতে দেখা গেছে। কর্ণাটকের বিরোধী দল CAA এর প্রতিবাদ জানিয়ে গতকাল থেকে “বন্ধ” ডেকেছিলেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ৩ দিন যাবত ১৪৪ ধারা জারি করছে বি.।এস. ইয়েদুরাপ্পা সরকার।

আগামীকাল সকাল থেকেই বন্ধ ডেকেছিল কর্ণাটকের বামপন্থী ও মুসলিম সংগঠনের কনসোর্টিয়াম কর্তৃক। এই বিষয়ে পুলিশ কে জিজ্ঞাসা করা হলে বেঙ্গালুরু পুলিশ কমিশনার ভাস্কর রাও বলেছেন, তিন দিনের জন্যেই ১৪৪ ধারা চলবে।

তিনি বলেন  “আগামী ৩ দিনের জন্য আগামীকাল সকাল ৬ টা থেকে গ্রামীণ এলাকা ও শহুরে এলাকা জুড়ে অর্থাৎ পুরো বেঙ্গালুরুতে ১৪৪ ধারা জারি করা হবে”।

প্রসঙ্গত আজ ই ইয়েদুরাপ্পা সরকার কে CAA করতে দেবেন কিনা এই প্রশ্নের জবাবে তিনি পরিষ্কার জানিয়েছেন যে কর্ণাটকে CAA হচ্ছেই। CAA না করার কোন কারন খুঁজে পাননি তিনি।

CAA নিয়ে আজ সৌরভ কন্যাও তাঁর মত ব্যক্ত করেছেন। সৌরভ কন্যা লেখেন “আজ যারা আমরা নিজেদের নিরাপদ মনে করছি, ভাবছি আমরা তো মুসলমান বা খ্রিস্টান নই, তারা মূর্খের স্বর্গে বাস করছি। সঙ্ঘ ইতিমধ্যেই বামপন্থী ইতিহাসবিদ এবং পশ্চিম সংস্কৃতিতে বিশ্বাসী টার্গেট করেছে। কাল তাদের ঘৃণা গিয়ে পড়বে স্কার্ট পরিহিত মহিলা, যাঁরা মাংস খান, মদ্যপান করেন, বিদেশি সিনেমা দেখেন, বছর বছর তীর্থে যান না, দাঁতনের পরিবর্তে টুথপেস্ট ব্যবহার করেন, আয়ুর্বেদিকের বদলে অ্যালোপ্যাথি ওষুধ পছন্দ করেন, দেখা হলে ‘জয় শ্রী রাম’ বলার বদলে হাত মেলান বা চুম্বন করেন, তাঁদের উপর। কেউ নিরাপদ নয়। ভারতকে বাঁচাতে হলে এগুলি আমাদের ভীষণ ভাবে অনুধাবন করতে হবে।’’

এই নিয়ে কমল হাসান ও বলেছেন মৃত্যু পর্যন্ত এই CAA নিয়ে প্রতিবাদ করে যাব।

এমনকি CAA এর প্রতিবাদ জানিয়ে দিল্লীর রাজপথে এক ২৫ বছর বয়সী যুবক গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।