এনআরসি হলে অর্ধেক ছত্তিশগড় নাগরিকত্ব প্রমাণে ব্যর্থ হবে, বললেন মুখ্যমন্ত্রী

9416
322
Chhattisgarh Chief Minister on NRC

এনআরসি হলে অর্ধেক ছত্তিশগড় নাগরিকত্ব প্রমাণে ব্যর্থ হবে, বললেন মুখ্যমন্ত্রী

জাতীয় নাগরিক নিবন্ধ বা এনআরসি প্রয়োগ হলে তাঁর রাজ্যের অর্ধেকেরও বেশি লোক নিজেদের নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে পারবেনা, কারণ তাদের কোন জমি বা জমির দলিল নেই। এমনটাই জানালেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল।

তিনি বলেন যে, ছত্তিশগড়ের অর্ধেক লোকের কাছে নাগরিকত্বের কোন প্রমাণপত্র নেই কারণ তাদের পূর্বপুরুষেরা নিরক্ষর ছিলেন এবং তাঁরা অন্যান্য রাজ্য থেকে এখানে চলে এসেছিলেন।

শুক্রবার রায়পুরে একটি কর্মসূচীর বক্তব্যে সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন যে, যেভাবে মহাত্মা গান্ধী ১৯০৬ সালে আফ্রিকায় ব্রিটিশদের সনাক্তকরন প্রকল্পের বিরোধিতা করেছিলেন, তিনিও সেভাবে এনআরসির বিরোধিতা করবেন।

নোটবন্দির সময়ে যেভাবে মানুষকে লাইনে দাঁড়াতে হয়েছিল, সেভাবেই নাগরিকত্ব প্রমাণের লাইনে দাঁড়িয়ে নিজেদের প্রমাণ করতে হবে যে আমরা ভারতীয়। আর কেউ যদি তা না পারে তাহলে তার কি হবে? সে কোথায় যাবে? এমন প্রশ্ন তাঁর মুখে শোনা গেল ঐদিন।

তিনি আরও বলেন যে, ছত্তিশগড়ে ২.৮ কোটি মানুষ রয়েছেন যাঁদের অর্ধেকেরও কাছে নাগরিকত্ব প্রমাণের কোন তথ্য নেই। তাদের জমিও নেই আর জমির দলিলও নেই। তাদের পূর্বপুরুষরা অন্য রাজ্য থেকে এখানে এসেছিলেন। তাঁরা এখন সেই ৫০-১০০ বছরের পুরনো নথি কোথা থেকে আনতে পারবে? প্রশ্ন তোলেন তিনি।

তিনি জানান, “এটি মানুষের ওপর কেবল অহেতুক একটা বোঝা। আমাদের দেশে অনুপ্রবেশের তদন্তের জন্যে বেশ কয়েকটি সংস্থা রয়েছে। সেইসব সংস্থাই অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে পারে। কেন্দ্র কিভাবে সাধারণ মানুষকে এভাবে সমস্যায় ফেলতে পারে।“

তিনি আরও জানান যে, তিনি সর্বতভাবে জাতীয় নাগরিক নিবন্ধের বিরোধিতা করবেন এবং দেশে এনআরসি লাগু হলে তিনিই প্রথম ব্যক্তি হবেন যিনি এটিতে সই করবেন না।