চলন্ত ট্রেনে পাবজি খেলতে খেলতে মৃত্যু তরুণের

0
603
die in train during play PUBG

চলন্ত ট্রেনে পাবজি খেলতে খেলতে মৃত্যু তরুণের

গোয়ালিয়রের চন্দ্রাবলী নাকা ঝাঁসি রোডের বাসিন্দা সৌরভ (২০) ট্রেনে দিল্লী যাওয়ার পথে জলের বদলে ভুল করে কেমিক্যাল খেয়ে ফেলেন। মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যেই তাঁর মৃত্যু হয়।

সৌরভ ও তাঁর বন্ধু সন্তোষ শর্মা ‘স্বর্ণ জয়ন্তী’ ট্রেনে দিল্লী যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে তাঁরা একসাথে পাবজি খেলছিলেন। সৌরভের ব্যাগের মধ্যে জল ও কেমিক্যালের দুটি বোতল একসাথেই রাখা ছিল। খেলায় বুঁদ হয়ে থাকা সৌরভ খেয়ালই করেননি যে জলের পরিবর্তে তিনি কেমিক্যালের বোতল হাতে নিয়েছেন।

অল্প একটু খাওয়ার পরেই তিনি বুঝতে পারেন যে ভুল করে জলের বদলে তিনি কেমিক্যাল খেয়ে ফেলেছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি সাহায্য চান এবং ট্রেনের চেনও টানেন।

প্রায় ১০ মিনিট পর একজন গার্ড এসে চেন টানার কারণ জানতে চান। তাঁকে জানানোয় তিনি বলেন যে ট্রেনে কোন ডাক্তার নেই। এর কিছুক্ষণ পর ট্রেনটি আগ্রা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে পৌছয়। সেখানে এক চিকিৎসক এসে তাঁকে পরীক্ষা করেন। কিন্তু ততক্ষণে সৌরভের মৃত্যু হয়ে যায়।

এই ঘটনায় হততবাক সৌরভের বন্ধু সন্তোষ জানান তিনি আর কখনোই পাবজি খেলবেন না।

এই ঘটনায় সমাজকর্মী দীপ শর্মা বলেন যে, ট্রেনটিতে চিকিৎসক ও প্যারামেডিক্যাল স্টাফেদের অনুপস্থিতি অবাক করে, কারণ এই ধরণের দূর পাল্লার ট্রেনে সবসময়ই চিকিৎসক থাকার আশ্বাস রেলমন্ত্রী দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন যে এমন আরও অনেক ঘটনা ঘটে যেখানে ট্রেনের যাত্রীরা কোনও জরুরি চিকিৎসা না পেয়ে মারা যান।

এর সাথে তিনি বাবা মায়েদের পরামর্শ দেন যে মোবাইলে গেমের প্রতি বাচ্চাদের আসক্তি কমানোর দিকে মনোযোগ দিতে। কারণ এইরকম মৃত্যু কখনোই কাম্য নয়।